প্রযুক্তিতে বাংলার দুরবস্থা

আমাদের দেশ এমনই ডিজিটাল যে আজ পর্যন্ত ম্যাক এবং আইফোনের জন্য নির্ঝঞ্জাট বাংলা লেখার কোন উপায় বের হলো না। কোন রকমে, ঠেকাঠুকা দিয়ে লেখা যায়। কোন উন্নতি নাই অ্যাপগুলোর। আইফোনে রিদমিক ভালো ছিল, আপডেটের অভাবে এখন অকেজো। ম্যাকের জন্য যে অভ্র তারও একই অবস্থা। আপডেট নাই, কিবোর্ডের নির্দিষ্ট বিন্যাসগুলো অপরিচিত, ব্যবহার করা দূরহ, আমি ফনেটিক ভালো পাইনা।

ম্যাক এবং আইফোনে সরাসরি বাংলা ব্যবহারের কিছু ব্যবস্থা আছে, কিন্তু সেগুলোর আদ্যপান্ত বোঝা মুশকিল, কিবোর্ডের নির্দিষ্ট বিন্যাসগুলো এলোমেলো। অন্য ভাষার তো কম্পিউটারের সম্পুর্ণ পরিচালনা পদ্ধতিই সে ভাষাতে পাওয়া যায়। যেমন ফরাসি উইন্ডোজ বা ফরাসি ম্যাক পুরোটাই ফরাসি, সেখানে কম্পিউটারের আপদমস্তক সেই ভাষাতেই, ব্রাউজারের ঠিকানা লেখার যায়গা ছাড়া আর কোথাও কোন ইংরেজি নাই একটুও। উইন্ডোজ বা ম্যাক এর মত জনপ্রিয় কম্পিউটারের পরিচালনা পদ্ধতি কেন সম্পুর্ণ বাংলায় নাই আজও? কেন আমাদেরকে এখনো বিজয় বা অভ্র বা এমনকোন ‘সফটওয়ারের’ দারস্থ হতে হবে বাংলা ব্যবহারের জন্য? এই দায় কি মাইক্রোসফট আর অ্যাপলের একার, না কি আমাদেরও?

ভাষার সম্ভারে, সাহিত্যে এবং ঐতিহ্যে বাংলা দুনিয়ার যে কোন প্রধান ভাষার সমকক্ষ। ভাষা ব্যবহারকারির জনসংখ্যার দিক দিয়ে পৃথিবীতে আমরা দুনিয়ায় ষষ্ঠ। কিন্তু প্রযুক্তি এবং ইন্টারনেটের মেইনস্ট্রিমে বাংলার অবস্থান জঘন্য। এই দায় আমাদের প্রযুক্তিবিদ এবং উদ্যোক্তাদের।

আমাদের বড়মুখওয়ালা ‘উদ্ভাবনী উদ্যোক্তাবৃন্দ’ মুখ ব্যতীত অন্যকিছু কি নড়াবেন একটু দয়া করে, অন্তত এই ভাষার মাসের উসিলায়? না কি ফেব্রুয়ারি এলে “বাংলা চাই” স্লোগান দিয়ে আইপুনে ইংরিজি টিপতে বসবেন আবার? বাংলা তো শুধু চেয়ে বসে থাকলে হবে না, পাছাটাও একটু নাড়াতে হবে।